হ্যাকিংয়ের হুমকিতে ৬০ কোটি গ্যালাক্সি ফোন

0

গত বছর দুয়েক সময়ের মধ্যে বিক্রি হওয়া প্রায় ৬০ কোটি গ্যালাক্সি স্মার্টফোন রয়েছে হ্যাকিংয়ের হুমকিতে। এসব ডিভাইসে বিল্ট-ইন হিসেবে থাকা সুইফট কিবোর্ডের কারিগরি দুর্বলতার কারণেই এই হুমকি তৈরি হয়েছে। লন্ডনে গতকাল অনুষ্ঠিত ব্ল্যাক হ্যাট সিকিউরিটি কনফারেন্সে সিকিউরিটি প্রতিষ্ঠান নাউসিকিউরের গবেষক রায়ান ওয়েলটন এই কথা জানান।

প্রি-ইনস্টলড অ্যাপ হিসেবে থাকা সুইফট কিবোর্ডের ল্যাংগুয়েজ প্যাক আপডেট করা হয়ে থাকে প্লেইন-টেক্সটে। এতে এনক্রিপটেড সংযোগ ব্যবহার করা হয় না বলেই এই কিবোর্ড অ্যাপে হ্যাকিংয়ের ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। এই দুর্বলতা কাজে লাগিয়ে হ্যাকাররা ফোনের জিপিএস ও অন্যান্য সেন্সর এবং ক্যামেরা ও মাইক্রোফোনের মতো ফিচারে অ্যাকসেসের সুযোগ পেয়ে যেতে পারে।

ব্যবহারকারীর অগোচরেই ক্ষতিকর অ্যাপ ডিভাইসে ইনস্টল করে দেওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে। আবার ভয়েজ কল বা মেসেজিং সার্ভিসেও আঁড়িপাতা সম্ভব এই দুর্বলতা কাজে লাগিয়ে। ফোনে সংরক্ষিত ব্যক্তিগত বিভিন্ন তথ্য (ছবি, টেক্সট মেসেজ, ভয়েজ রেকর্ডিং প্রভৃতি) হাতিয়ে নেওয়াও সম্ভব এর মাধ্যমে। এমনকি এটি ফোনের বা ফোনে থাকা বিভিন্ন অ্যাপের নিয়ন্ত্রণ নিতেও সক্ষম বলে জানিয়েছেন রায়ান ওয়েলটন। প্রি-ইনস্টলড এই অ্যাপ ফোন থেকে দূর করারও কোনো সুযোগ নেই। একে ডিফল্ট হিসেবে ব্যবহার না করলেও এর ঝুঁকি থেকেই যাবে।

নাউসিকিউর গত নভেম্বরে এই ঝুঁকি জানার পর স্যামসাংকে জানায়। পরে স্যামসাং এর জন্য প্যাচ বের করে তা মোবাইল অপারেটরদের পাঠালেও তা কতটা ব্যবহূত হয়েছে সে সম্পর্কে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। আর এই ঝুঁকির তথ্য স্যামসাং সকলের জন্য উন্মুক্ত করার জন্য নাউসিকিউরের কাছে কয়েক মাস সময় চাওয়ার কারণেই মূলত এতদিনে এসে নাউসিকিউর সকলকে জানিয়ে দিল গ্যালাক্সি ডিভাইসের এই ঝুঁকির কথা।

Share.

Leave A Reply

4 × eight =