সড়ক দুর্ঘটনা এড়াতে স্যামসাংয়ের সেফটি ট্র্যাক

0

গবেষণায় দেখা গেছে, আর্জেন্টিনায় প্রতি ঘণ্টায় অন্তত একজন সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যায়। বিশ্বজুড়েই অহরহ ঘটছে সড়ক দুর্ঘটনা। বিশেষ করে উন্নয়নশীল ও অনুন্নত দেশগুলোতে মহাসড়কের বেহাল দশা এবং ওভারটেকিংয়ের প্রবণতার কারণে ঘটে প্রাণহানি। এ কথা মাথায় রেখেই স্যামসাং নিয়ে এসেছে নতুন এক প্রযুক্তি, যা সড়ক দুর্ঘটনা এড়াতে কিছুটা হলেও কার্যকর ভূমিকা রাখবে। স্যামসাং এই প্রযুক্তির নাম দিয়েছে ‘সেফটি ট্র্যাক’।

স্যামসাংয়ের অফিশিয়াল ব্লগে নতুন এই প্রযুক্তির ব্যাপারে বিস্তারিত বলা হয়েছে, সঙ্গে পোস্ট করা হয়েছে একটি ভিডিও ক্লিপ। সেফটি ট্র্যাক প্রযুক্তির মাধ্যমে যেকোনো ট্র্যাকে মাত্র দুটি ডিভাইস যোগ করা হয়। সামনে একটি ওয়্যারলেস ক্যামেরা এবং পেছনে চারটি বড় স্ক্রিন।

সামনের ক্যামেরা দিয়ে ট্র্যাকের সামনে কী রয়েছে, সেটা দেখা যাবে পেছনে লাগানো জায়ান্ট স্ক্রিনে। ফলে ট্র্যাকের পেছনে থাকা গাড়ি, যেগুলো ওভারটেকিংয়ের চিন্তা করছে, তারা বুঝতে পারবে ওভারটেক করাটা ঠিক হবে কি না!

স্যামসাং বলছে, যেহেতু গাড়ির সামনে কী রয়েছে, সেটা পেছনে থাকা ড্রাইভার দেখতে পারছেন, তাই হঠাৎ ব্রেক কষলে সংঘর্ষ এড়িয়ে যাওয়ার সুযোগও রয়েছে এতে। কারণ, আগে থেকেই সতর্ক হয়ে যেতে পারবেন পেছনের গাড়ির ড্রাইভার।

স্যামসাং জানিয়েছে, এখনো ‘সেফটি ট্র্যাক’ প্রযুক্তিটি গবেষণার পর্যায়ে রয়েছে। তবে বাণিজ্যিকভাবে এটি বাজারে ছাড়তে বেশি সময় লাগবে না বলেও জানিয়েছে কোরিয়ান এই প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান।

Share.

Leave A Reply

÷ three = three