স্বপ্ন পূরণের যাত্রায় ‘পদ্মা ক্রিকেট একাডেমি’

0

মাদারীপুর জেলার শিবচর থানার কাওড়া কান্দি ফেরী ঘাটে পদ্মা নদীর কূল ঘেঁষে গড়ে উঠেছে ‘পদ্মা ক্রিকেট একাডেমি’। প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকে এটি বর্তমানে ওখানকার সকল ক্রিকেট প্রেমীর কাছে মিলন মেলায় পরিণত হয়েছে।

গেলো ১২ জানুয়ারি শুক্রবার বিকাল ৫ টায় লোকারণ্য পরিবেশে শুভ উদ্বোধন হলো বহুল প্রতীক্ষিত ‘পদ্মা ক্রিকেট একাডেমি’। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক কাওড়া কান্দি ক্রিকেট টীমের অধিনায়ক সুলতান মাহমুদ।

এ সময় ফুলেল ফিতা কেটে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন ‘পদ্মা ক্রিকেট একাডেমি’র ৫ জন প্রতিষ্ঠাতাবৃন্দ সুলতান মাহমুদ (প্রধান উপদেষ্টা ‘পদ্মা ক্রিকেট একাডেমি’) এবং মামুন হোসেন, রুবেল হোসেন, সাঈদ হোসেন ও নাজমুল হোসেন প্রমুখ। এদের দু’জন মামুন হোসেন এবং নাজমুল হোসেন ছিলেন ঢাকার ধানমন্ডির ‘আবাহনী ক্রিকেট কোচিং স্কুলের প্রাক্তন স্বনামধন্য ক্রিকেটার। আর রুবেল হোসেন ঢাকার একজন তরুণ ব্যবসায়ী এবং সাঈদ হোসেন এলাকার সবার প্রিয় মানুষদের একজন।

গেলো বছর ২০১৭ সালের নভেম্বরের ১১ তারিখ, মাদারীপুর জেলার শিবচর থানার কাওড়া কান্দি পুরাতন ফেরী ঘাট এক’পা দু’পা করে যাত্রা শুরু করে ‘পদ্মা ক্রিকেট একাডেমি’। এই প্রত্যন্ত অঞ্চলে বাংলাদেশর জাতীয় ক্রিকেট’কে আরো শক্তিশালী করতে মামুন হোসেন এবং নাজমুল হোসেন ছুটে যান এলাকার সাবেক ক্রিকেটের অধিনায়ক বৃন্দ সুলতান মাহমুদ, সাঈদ হোসেন এবং রুবেল হোসেনের কাছে। এভাবে এই স্বপ্নবাজ ৫ জনের স্ব-উদ্যোগ ও অর্থায়নে প্রতিষ্ঠিত হয় কাঙ্ক্ষিত পদ্মা ক্রিকেট একাডেমি।

পদ্মা ক্রিকেট একাডেমি’তে বর্তমানে প্রায় শত জন শিক্ষার্থী প্রাতিষ্ঠানিকভাবে ক্রিকেট অনুশীলনে রয়েছে। পদ্মার পাড়ে এখন ঘুরতে গেলে মনে হয় অদম্য এক ঝাঁক অদূর ভবিষ্যতের ক্রিকেট কাণ্ডারি সকাল সন্ধ্যা স্বপ্ন বাস্তবায়নে ব্যস্ত। এই অদম্য ৫ জন ক্রিকেটকে ভালোবেসে বাঁচতে চান।

তাঁদের স্বপ্ন, পদ্মা ক্রিকেট একাডেমি’কে কেন্দ্র করে দেশের সর্ববৃহৎ ক্রিকেট একাডেমি গড়ে উঠুক। সে জন্য দেশের জাতীয় ক্রিকেটের এবং ক্রিকেট প্রেমীদের সহযোগিতা কামনা করেন তাঁরা। দেশের সবার জন্য সমানভাবে সুযোগ-সুবিধা রেখে সুস্থ ও নিরাপদ পরিবেশে বছরব্যাপী ভর্তি কার্যক্রম চলছে। (যোগাযোগ-01950592810 )

Share.

Leave A Reply

seven + one =