স্বপ্ন ছিল সেমিফাইনাল কিন্তু চ্যাম্পিয়ন হয়েই দেশে ফিরছেন কিশোরেরা

0

নতুনকিছু ডেস্ক।। 

বাংলাদেশের ১৫ না পেরোনো কিশোরদের স্বপ্ন ছিল সেমিফাইনাল কিন্তু তারা চ্যাম্পিয়ন হয়েই ফিরছেন দেশে । সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই সেমিফাইনালে উঠেছিল বাংলার কিশোরেরা। ফেভারিট ভারতকে হারিয়ে ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছিল বাংলার কিশোরেরা। গতকাল শনিবার ফাইনালে পাকিস্তানের বিপক্ষে রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে জয়লাভ করে বাংলার কিশোরেরা।  নির্ধারিত ৯০ মিনিটে ১-১ গোলে সমতা নিয়ে মাঠ ছাড়ে দুই দল। এর পর অতিরিক্ত সময়েও কোন দল গোল না পেলে ম্যাচ গড়ায় ট্রাইবেকারে। ট্রাইবেকারে ৩-২ গোলের ব্যবধানে শিরোপা ছিনিয়ে নেয় বাংলার কিশোরেরা।

নেপালের কাঠমান্ডুর আনফা কমপ্লেক্সে ফাইনালে মুখোমুখি হয় পাকিস্তান ও বাংলাদেশ। দুই দলই গোল পাওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে খেলছিল। তবে প্রথমার্ধের শুরুর দিকে সুযোগ তৈরি করেও গোল আদায় করে নিতে পারেনি বাংলাদেশ। ১৬ মিনিটের মাথায় বাংলাদেশ দলের আক্রমণ বৃথা যায় পাকিস্তানি গোলরক্ষকের নৈপুণ্যে। তবে ঠিক ২৫ মিনিটের মাথায় কর্নার শটের পর হেড থেকে গোল আদায় করে নেয় বাংলাদেশ। প্রথমার্ধে আর কোনো গোল হয়নি।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ১-১ গোলে সমতা আনে পাকিস্তান। ৫৩ মিনিটে মাহবুবের পেনাল্টিতে সমতায় ফিরে তারা। অবশ্য পরে বাংলাদেশ অনেক সুযোগ সৃষ্টি করতে পেরেছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত খেলা ড্র হওয়ায় গড়িয়েছে টাইব্রেকারে।

টাইব্রেকারে প্রথম শট নেয় বাংলাদেশ। তবে রাজন হাওলাদারের সেই শট গোলরক্ষকের মাথার অনেক উপর দিয়ে বাইরে চলে যায়, কিছুটা মুষড়ে পড়ে বাংলাদেশ। পরে অবশ্য জুনায়েদ আহমেদ শাহের শট আটকে দেন বাংলাদেশের গোলরক্ষক। পরের গোলটি খেলার পার্থক্য গড়ে দেয়। তৃতীয় পেনাল্টিতে বাংলাদেশ গোল পেলেও চতুর্থ পেনাল্টিতে গোল পায়নি পাকিস্তান। শেষ পর্যন্ত উভয় দল অবশ্য ড্রয়ের দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে ছিল। তবে মুদাসসের নাজারের শেষ শটটি ঠেকিয়ে দিয়েই জয়ের উৎসবে মেতে ওঠে বাংলাদেশের দামাল ছেলেরা।

Share.

Leave A Reply

− 6 = one