সৌরভ ও তমার ভালোবাসার ভূস্বর্গ

0

সৌরভ ও অনিক দু’বন্ধু মিলে এক সন্ধ্যায় বনানীর একটি নামীদামী রেস্টুরেন্টে যায় কফি খেতে। দু’জনে মিলে কফি খাচ্ছেন আর জীবনের গল্প করছেন। হঠাৎ তাকিয়ে দেখলেন সামনের লাল টেবিলটিতে অপরূপ সুন্দরী দু’জন মেয়ে বসে কফি খাচ্ছেন আর প্রাণবন্ত আড্ডা দিচ্ছেন।

তাঁদের মধ্যে একটি মেয়ে অনেক মায়াবী আর দেশীয় সংস্কৃতিতে গড়া এক প্রতিমা। এটি দেখছেন আর সৌরভ হারিয়ে যাচ্ছেন প্রথম দেখার ভালবাসায়। মেয়েটিরও আর চোখে সৌরভের দিকে চেয়ে থাকা মনে হয় যুগ যুগ ধরে একজন আরেক জনের চেনা। এভাবে কখন যে মেয়েটি হাত নাড়িয়ে কফি হাউজ থেকে বের হয়ে গেল সৌরভ বুঝতেই পারেনি।

এদিকে অনিককে সৌরভের হঠাৎ চুপ হয়ে যাওয়া ভাবায়। সে বলে, কিরে চুপ হয়ে গেলি কেনো? সৌরভ বলে তাঁর প্রথম দেখায় ভালোবাসার কথা। কিন্তু ততুক্ষণে মেয়ে দুটি হারিয়ে যায় ব্যাস্ত শহরে। আর খুঁজে পায় না কোথাও। কিন্তু সৌরভ জানে ছোট্ট এই শহর ও পৃথিবীতে একদিন তাঁকে খুঁজে পাবেন। মেয়েটি যেন মিশে গেছে সৌরভের রক্তে ও প্রতিটি কল্পনায়। তাঁরা দু’জনে গিয়ে মেয়ে দুটির লাল টেবিলে বসেন। প্রেমিক সৌরভ ভালো লাগার আর ভালোবাসার মানুষটির ফেলে যাওয়া নীল রঙ্গের কানের একটি দুল পান। এখন শুধু ফেলে যাওয়া দুলটিই তাঁর একমাত্র সম্বল।

সৌরভ একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতার ফাইনাল ইয়ারের ছাত্র এবং অসম্ভব গান পাগল একজন মানুষ। দেশের একটি নামি টেলিভিশনের সাংবাদিক। একদিন বনানীর পাশে একটি বস্তিতে ভয়াবহ আগুণ লাগে। সৌরভ ছুটে যায়। রিপোর্ট করতে। সৌরভের ক্যামেরা চলছে। এদিকে তমা নামক মেয়েটিও একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ও শিক্ষানবিশ রিপোর্টার। সেও একই রিপোর্ট করতে ঐ বস্তিতে যান। হঠাৎ দেখলেন তাঁর ক্যামেরায় ভেসে আসছে ঐ কল্পনার মেয়েটি, যে কিনা আগুনে পুড়ে যাচ্ছেন। সৌরভ তো হতবাক! সে কি ভুল দেখছেন, নাকি এটাও কল্পনা? তাঁর পেছন দিক থেকে ক্যামেরা ম্যান ধাক্কা দেয়। এই সৌরভ! মেয়েটি পুড়ে যাচ্ছে। সৌরভ লাফ মেরে ঝাঁপিয়ে পড়লেন আগুনে এবং মেয়েটিকে উদ্ধার করলেন।

ভালো করে তাকিয়ে দেখলেন, তাঁর ভালোবাসার মানুষটি তাঁর বুকের মধ্যে জড়িয়ে আছেন। এ যেন ভূ-স্বর্গের একখণ্ড অনেক দামে কেনা ভালোবাসার উর্বর জমি। হারিয়ে গেলেন গত তিন মাসের স্মৃতির পাতায়।

লেখক: হাকিম মাহি।

শিক্ষার্থী, জার্নালিজম, কমিউনিকেশন অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগ। স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ।

Share.

Leave A Reply

+ 35 = 39