শেষ ম্যাচ জিতে সম্মান রক্ষা করল ম্যাথিউজরা

0

নতুন কিছু ডেস্ক।। 

টেস্ট সিরিজে একতরফা আধিপত্য দেখালেও ওয়ান ডে সিরিজে হার নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে শ্রীলঙ্কার৷ নিয়মরক্ষার চতুর্থ একদিনের ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে সম্মান কিছুটা হলেও পুনরুদ্ধার করল ম্যাথিউজরা৷

প্রথম তিনটি একদিনের ম্যাচ জিতে দক্ষিণ আফ্রিকা আগেই সিরিজ জিতে গিয়েছে৷ পাল্লেকেলেতে চতুর্থ একদিনের ম্যাচে প্রোটিয়াদের ডাকওয়ার্থ-লুইস নিয়মে ৩ রানে পরাজিত করল শ্রীলঙ্কা৷

চোটের ডন্য ডু’প্লেসিস ছিটকে গিয়েছেন সিরিজ থেকে৷ তার অনুপস্থিতিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে নেতৃত্ব দিতে নেমে টসে জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান কুইন্টন ডি’কক৷ প্রথমে ব্যাট করে শ্রীলঙ্কা দলগত প্রচেষ্টায় নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ৩০৬ রান তোলে৷

দুই ওপেনার নিরশন ডিকওয়েলা ও উপুল থরঙ্গা যথাক্রমে ৩৪ ও ৩৬ রান করে আউট হন৷ কুশল পেরেরা, থিসারা পেরেরা ও দাসুন শানাকা হাফসেঞ্চুরি করেন৷ কুশল ৫১, থিসারা অপরাজিত ৫১ ও শানাকা ৬৫ রান করেন৷ ম্যাথিউজ ২২ রান করে আউট হন৷

প্রোটিয়াদের হয়ে দু’টি করে উইকেট নিয়েছেন লুঙ্গি এনগিদি ও জেপি ডুমিনি৷ একটি করে উইকেট ফেলুকাওয়ো, মাল্ডার ও কেশব মহারাজের৷

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকা ইনিংস শুরু করা মাত্র বৃষ্টিতে খেলা সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে যায়৷ বৃষ্টির পর নতুন করে ম্যাচ শুরু হলে জয়ের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকার সামনে লক্ষ্যমাত্র কমে দাঁড়ায় ২১ ওভারে ১৯১ রান৷

টি-২০ ক্রিকেটের যুগে লক্ষ্যটা এমন কিছু বড় না হলেও খুব সহজও ছিল না৷ ডি’কক (২৩), আমলা (৪০), ডুমিনি (৩৮) ও মিলারের (২১) ব্যাটে ভর করে লক্ষ্যের খুব কাছে পৌঁছে গেলেও শেষমেশ তীরে এসে তরি ডোবে প্রোটিয়াদের৷ ২১ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৮৭ রানে আটকে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা৷

লাকমল ৪৬ রানে ৩ উইকেট নেন৷ শেষ ওভারে জয়ের জন্য আট রান বাকি ছিল প্রোটিয়াদের৷ ব্যাট করছিলেন মিলার৷ লাকমলই মিলারকে ফিরিয়ে দলের জয় সুনিশ্চিত করেন৷ এছাড়া থিসারা পেরেরা দু’টি এবং ধনঞ্জয়া, শানাকা ও ডি’লিসভা একটি করে উইকেট নেন৷ ম্যাচের সেরা হয়েছেন শানাকা৷

Share.

Leave A Reply

ninety ÷ = 10