শিশু ‘অটিস্টিক’ হওয়ার কারণ মা!

0

চিকিৎসা বিজ্ঞানে এখনো শিশুর অটিজম বা মানসিক বিকাশ জনিত সমস্যার প্রকৃত কারণ জানা যায়নি। মায়ের শরীরে জিংক ঘাটতি কারণে শিশুর অটিজমের অন্যতম কারণ হতে পারে বলে সাম্প্রতিক এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

গর্ভাবস্থায় পর্যাপ্ত জিংকের অভাবে অনাগত শিশুটিও অটিজম হওয়ার ঝুঁকি আছে। এছাড়াও পরিবেশগত এবং জেনেটিক ক্রটির কারণেও শিশু অটিজম হতে পারে।আমেরিকা ও জার্মানির একদল বিজ্ঞানীদের গবেষণায় এ তথ্য বলা হয়।

মূলত শিশুর বৃদ্ধির প্রাথমিক অবস্থায় মস্তিস্কের কোষগুলোর মধ্যে সংযোগ স্থাপন করতে জিংকের ভূমিকা রয়েছে। একটি জটিল প্রক্রিয়ায় মস্তিস্ক জিংক শিশুর মস্তিকের এই প্রাথমিক বৃদ্ধি প্রক্রিয়ায় অংশ নেয়।

পরিবেশের কারণে মায়ের জিংকের অভাবে শিশুর মধ্যে শারীরিক পরিবর্তন আচরণে অস্বাভাবিকতা হতে পারে।

ওই গবেষণায় বলা হচ্ছে, জিংক মানুষের মেধার বিকাশ এবং কমপ্লেক্স মলিকুলাস গঠনে কাজ করে, তাই এর অভাবে অটিজম হওয়ার ঝুঁকি থাকে।

তবে বিজ্ঞানী বলেছেন, এটি গবেষণার একেবারে প্রাথমিক ধাপ। পুরোপুরি প্রমাণ না পাওয়া পর্যন্ত গর্ভবতী মহিলাদের এখনই অতিরিক্ত জিংক গ্রহণ করতে নিরুৎসাহিত করছেন তারা।

এ বিষয়ে স্টানফোর্ড ইউনিভার্সিটি স্কুলের মেডিসিন ইন ক্যালিফর্নিয়ার অভিজ্ঞ লেখক ড. সেলি কিম বলেছেন, অটিজম মূলত শিশুর মস্তিস্কের কোষগুলোর প্রাথমিক অবস্থায় সংকোচন ও জড়তার কারণে হয়ে থাকে। স্নায়ুতন্ত্রের বিকাশ গঠন অস্বাভাবিকতার ফল হলো অটিজম।

অটিজম বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন শিশুরা সাধারণত অপরের সাথে ঠিকমতো যোগাযোগ করতে পারে না। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও অটিজম সচেতনতা শুরু হয়েছে। তাদেরও অন্র দশটি স্বাভাবিক শিশুর মতো বেড়ে ওঠা কিংবা শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ রয়েছে।

সূত্রঃ ডেইলিমেইল

Share.

Leave A Reply

fifty four + = 58