শিশুর বিকাশের কিছু খাদ্য

0

আজকার শিশুদের খাবারের ক্ষেত্রে বরাবই অনিহা দেখা যায় তবে কিছু খাবার আছে যা শিশুদের বুদ্ধির জন্য অধিক জরুরি। শিশুর প্রথম ৫ বছরে প্রায় ৮৫ ভাগ বুদ্ধিবৃত্তিক বিকাশ ঘটে। এ বিষয়ে ড.সামিরা আরাফাত বলেন, শিশুর বাড়ন্ত অবস্থায় শরীর আর ব্রেইন দুটোর জন্য যথাযথ খাবার দরকার। চলুন তাহলে জেনে নিই সে খাবার গুলোঃ

শস্য জাতীয় খাবারঃ
শস্য জাতীয় খাবার যেমন গমএর রুটি, বিস্কুট শিশুকে খেতে দিতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে প্যাকেটজাত খাবারগুলো এড়িয়ে যাওয়া ভালো।

দই-লাচ্ছিঃ
দইয়ে আছে প্রবােয়াটিক নামে এক অসামান্য উপাদান যা হজমে ও রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে। এছাড়াও রয়েছে আরও অনেক পুষ্টিগুণ। যেসব শিশু জুস খেতে পছন্দ করে তাদের দইয়ের লাচ্ছি বানিয়ে দিতে পারেন। দইয়ের সাথে কয়েক টুকরো ফল যোগ করতে পারেন।

স্ট্রবেরিঃ স্ট্রবেরিতে উঁচু মাত্রার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ভিটামিন সি, যা শিশুর স্মরণশক্তি এবং মেধা বাড়াতে সাহায্য করে। সরাসরি খেতে না চাইলে জুস বানিয়ে দিতে পারেন।

সবুজ শাকঃ
শিশুর মস্তিষ্কের কোষ গঠনে সবুজ শাক সবজির বিকল্প নেই বললেই চলে। ভিটামিন এবং ফলিক এসিড সমৃদ্ধ সবুজ শাকসবজি নিয়মিত খাবারের তালিকায় রাখুন।

ডার্ক চকলেটঃ
চকলেট পছন্দ করে না এমন শিশু পাওয়া যাবে না। শিশুর এই পছন্দকে কাজে লাগিয়ে ডার্ক চকলেট খেতে দিন। এই চকলেটে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেনট উপাদান যা শিশুর মস্তিষ্ক ও শরীরের ধমনির রক্ত প্রবাহ বাড়ায়।

Share.

Leave A Reply

forty six − thirty seven =