রুটির ঝুড়ি নামে পরিচিত যে দেশ

0

সকালের নাস্তায় অনেকেরই প্রিয় খাবার রুটি। গরম গরম ও ফোলা ফোলা রুটি খেতে সকলে কতই না ভালোবাসে!  যদি বলি পৃথিবীর এমন একটি দেশ আছে যা রুটির ঝুড়ি নামে পরিচিত, সেক্ষেত্রে অনেকেই ভাববে, আছে হয়ত এমন দেশ যা দেখতে হয়ত রুটির মত গোল অথবা এমন একটি দেশ, যে দেশের জনগণ শুধু রুটি খেয়েই জীবন ধারণ করেন।

আসলে পৃথিবীর রুটির ঝুড়ি বলতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেইরি অঞ্চলের উত্তর ভাগের লোহিত নদীর উপত্যকা অঞ্চলকে বোঝায়। খাদ্য উৎপাদনে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় দেশ হওয়ায় দেশটির এরূপ নামকরণ। দেশটির  বিশাল উর্বর এলাকার কৃষি জমিতে চাষের মাধ্যমে এবং আরও নতুন কিছু প্রকল্পের  মাধ্যমে খাদ্য উৎপাদনে অত্যন্ত বড় ভূমিকা পালন করে আসছে। দেশটি নিজেদের খাদ্য প্রয়োজনীয়তা মেটানোর সাথে সাথে বিশ্বব্যাপী মানুষের চাহিদা মেটাচ্ছে।

বিশ্ববিখ্যাত এই প্রেইরি অঞ্চল এক সময় প্রায় ১৪২ মিলিয়ন একর এলাকা জুড়ে বিস্তীর্ণ ছিল। সম্পূর্ণ আমেরিকা প্রায় ৪০ ভাগ জুড়ে ছিল এর বিস্তৃতি। পরবর্তীকালে সময়ের সাথে সাথে তা ছোট হতে শুরু করে। উষ্ণ জলবায়ু ও মাঝারি আকারের বৃষ্টির ফলে শস্য উৎপাদনে সুবিধা হয় বলে মনে করেন কৃষি গবেষকগণ।

গবেষকগণ মনে করেন, ২০৫০ সালের মধ্যে পৃথিবীর মোট জনসংখ্যা ১০০০ কোটি ছাড়িয়ে যাবে। সেই হিসাব অনুসারে পৃথিবীর মোট খাদ্য উৎপাদন আরও ৭০-৮০ ভাগ বৃদ্ধি করা উচিৎ বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাই নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ ও প্রকল্পের মাধ্যমে পৃথিবীর রুটির ঝুড়িকে আরও উন্নত করার চেষ্টায় আছেন কৃষিবিদগণ।

Share.

Leave A Reply

× 2 = fourteen