মনোমুগ্ধকর নেইল আর্ট

0

কয়েকটি রঙের নেইলপলিশ দিয়ে নখের ওপর ডিজাইন ফুটিয়ে তোলাই নেইল আর্ট। বর্তমানে পার্লার গুলোতে বেশ জমজমাট ব্যবসা চলছে নেইল আর্টের। সব বয়সের নারীই মোটামুটি পছন্দ করেন নেইল আর্টের মতো স্মার্ট ফ্যাশনকে। পার্লারে নেইল আর্ট করাতে চাইলে খসতে পারে বেশ কিছু টাকা। অথচ বাসায় বসে খুব সহজে নিজেই করতে পারেন সখের নেইল আর্ট।

আজকাল সবাই নখকে একটু ভিন্নভাবে সাজাতে পছন্দ করে। তাই অনেকেই এখন বিভিন্ন ভাবে নখের আর্ট বা নকশা করে থাকে। তবে এ জন্য এখন পার্লারে না গেলেও চলে ইউটিউব কিংবা বিভিন্ন ওয়েবসাইটে দেখে নিজেই করে ফেলা যায় বিভিন্ন মনোমুগ্ধকর সব ডিজাইন।

সুন্দর নখ আপনার সৌন্দর্যকে কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেবে। আর এই হাতের নখে যদি পোশাকের রঙের সাথে মানানসই করে বিভিন্ন ধরনের নেইল পালিশ দিয়ে ডিজাইন করা হয় তবে পরিপূর্ণতা আসবে সাজে। আপনি হয়ে উঠবেন অন্যের কাছে আকর্ষণীয়। সেই সাথে আপনার ব্যক্তিত্বকে বাড়িয়ে দেবে কয়েকগুণ। সে ডিজাইনেরও রয়েছে নানা ধরণের নাম। প্রাচীন কালে মেহেদি পাতায় নখ রাঙানোই ছিলো নখের একমাত্র সাজ। এর পরের সময়ে ব্যবহার করা হতো নানা রঙ যার মধ্যে থাকত আলতা। কালের বিবর্তনে আর সময়ের মায়াবী আবরণে সেই সাজ তার রূপ পাল্টিয়েছে। এখনকার দিনে তাই নেইলপলিশ নখের সাজের অন্যান্য মাধ্যম।

নখ রাঙাতে এখন অনেকেই বেছে নিচ্ছেন কমলা, ম্যাজেন্টা, নীল, রেডিয়াম, লাল ইত্যাদি উজ্জ্বল রঙের নেইলপালিশ। নখে কী ধরনের ডিজাইন করা হবে, তা অনেকটাই নির্ভর করে নখের আকৃতি ও হাত-পায়ের ধরনের ওপর। স্কয়ার আকারের নখে যেমন নকশা ভালো লাগবে তা চোখা ও লম্বাটে আকৃতির নখে না-ও মানাতে পারে। বর্তমানে লম্বা সুচালো নখের চল ধীরে ধীরে চলে যাচ্ছে। এখন ছোট নখের চল বাড়ছে। সে ক্ষেত্রে ডিম্বাকৃতি, চারকোনা ও স্কোভাল আকৃতিতে ছোট করে কাটা নখের চল থাকবে।

Share.

Leave A Reply

÷ nine = one