বাবার স্বপ্ন বাস্তবায়নে ছুটে চলি অবিরাম

0

মেহনাজ পারভীন তুলি শিক্ষকতা করছেন স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের ইংরেজি বিভাগে। তাঁর সাথে কথা বলেছেন নতুনকিছু.কম প্রতিনিধি আমিনুল ইসলাম নাবিল।

নতুনকিছু.কম: শুভ অপরাহ্ন, কেমন আছেন?

মেহনাজ পারভীন তুলি: শুভ অপরাহ্ন, জ্বী ভালো আছি।

নতুনকিছু.কম: শৈশবটা কেমন ছিলো?

মেহনাজ পারভীন তুলি: জন্মস্থান যদিও আমার লক্ষীপুর, তবে বেড়ে ওঠা কুয়েতে। বাবার চাকরির সুবাদে কুয়েতে ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে পড়াশুনা করেছি। জীবনের যা কিছু অর্জন বাবার অবদান।

নতুনকিছু.কম: পড়াশুনা নিয়ে কিছু বলেন।

মেহনাজ পারভীন তুলি: কুয়েত থেকে দেশে ফিরে এসএসসি, এইচএসসি বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এ প্লাস পেয়ে উত্তীর্ণ হই। বরাবরই পড়াশুনায় মনোযোগী ছিলাম। এর পেছনে বাবার তাগিদ ছিলো, সহায়তা ছিলো। এরপর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি বিভাগে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করি। ভবিষ্যতে ইচ্ছা আছে দেশের বাইরে থেকে মাস্টার্স অথবা পিএইচডি করার।

নতুনকিছু.কম: বাংলাদেশের শিক্ষাব্যবস্থাকে কীভাবে মূল্যায়ন করবেন?

মেহনাজ পারভীন তুলি: এখানে, শিক্ষার প্রয়োগের ক্ষেত্রতে জোর কম। শুধু মুখস্থ বিদ্যার উপর জোর। নম্বর প্রদান প্রক্রিয়া যেমন স্বচ্ছ নয়, তেমনি আবার নকলের প্রবণতাও কম নয়। এগুলো দূর করা প্রয়োজন।

নতুনকিছু.কম: শিক্ষকতা পেশা কেন বেছে নেওয়া?

মেহনাজ পারভীন তুলি: আমার বাবার স্বপ্ন ছিলো আমি যেন অধ্যাপক হই। বাবার স্বপ্ন পূরণে ছুটে চলি অবিরাম। জাগো ফাউন্ডেশনর শিক্ষা বিভাগে অনলাইনে ইংলিশ ক্লাস নিতাম। বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজিতে শিক্ষকতা করেছি কিছুদিন। আর বর্তমানে স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশেই আছি।

নতুনকিছু.কম: স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের শিক্ষক পরিচয়ে কেমন অনুভব করেন?

মেহনাজ পারভীন তুলি: ভীষণ গর্বিত অনুভব করি। এখানকার শিক্ষকবৃন্দ খুবই যোগ্যতাসম্পন্ন। ইংরেজি বিভাগের কথা যদি বলি, অধ্যাপক শাহিন মাহাবুবা কবীর ম্যাডাম, স্থাপত্য বিভাগের স্থপতি অধ্যাপক শামসুল ওয়ারেস স্যার, আইন বিভাগের ড. আসিফ নজরুল স্যার, সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস স্যারসহ আরও অনেকেই আছেন। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার মান ভালো। সনদপত্র নিয়ে বাণিজ্য এখানে নেই। স্থায়ী ক্যাম্পাসের কাজও এগিয়ে চলছে দ্রুত গতিতে। সবকিছু মিলে স্টেটের অভিজ্ঞতা দারুন। তবে, স্টেটের প্রচার প্রচারণা আরও বৃদ্ধি করা প্রয়োজন।

নতুনকিছু.কম: ক্লাব নিয়ে আপনার কোন পরিকল্পনা আছে কিনা?

মেহনাজ পারভীন তুলি: হ্যা ক্লাবসমূহে যেন আরও অধিক উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতা হয়, আরও বেশি পরিমাণ বিভিন্ন বিষয়ের উপর কর্মশালা আয়োজিত হয় সেটা বাস্তবায়নের ইচ্ছা আছে।

নতুনকিছু.কম: শিক্ষকতার পাশাপাশি অন্য কী করছেন?

মেহনাজ পারভীন তুলি: টুকটাক লেখালেখি করার চেষ্টা করি, নেপালে আয়োজিত আন্তর্জাতিক একটি সম্মেলনে আমার লেখা গবেষণাপত্র উপস্থাপন করেছিলাম। লেখাটি আন্তর্জাতিক পত্রিকাতেও প্রকাশের প্রক্রিয়াধীন। এছাড়াও দি ডেইলি স্টার, ইন্ডিপেনডেন্ট বিডি এবং ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের মতামত পাতায় আমার লেখা ছাপিয়েছে। স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে প্রকাশিত বিজয় পত্রিকার ১১তম সংখ্যায় আমার লেখা প্রকাশিত হয়েছিলো।

নতুনকিছু.কম: একজন লেখকের কী কী গুণাবলী থাকা আবশ্যক বলে আপনি মনে করেন?

মেহনাজ পারভীন তুলি: লিখতে পারা বা লেখালেখি করা বিষয়টা ভিতর থেকে আসে। তবে এতটুকু বলবো, যেসকল শিক্ষার্থীরা লেখালেখিতে পারদর্শী হতে চাও তোমরা নিয়মিত সৃজনশীল লেখালেখির উপর মনোনিবেশ করবে, অনুশীলন করবে। বিশেষ করে ইংরেজি লেখায় জোর দিবে।

নতুনকিছু.কম: আপনাকে ধন্যবাদ

মেহনাজ পারভীন তুলি: আপনাকেও অসংখ্য ধন্যবাদ।

Share.

Leave A Reply

÷ three = three