পূজার সাজের খুঁটিনাটি

0

দরজায় কড়া নাড়ছে বাঙ্গালীর সব চেয়ে বড় উৎসব। ষষ্ঠী থেকে দশমী, কুমারী পূজা থেকে সিঁদুর খেলা, ধুনুচি নাচ থেকে প্রসাদ বিতরণ, প্রতিদিন সন্ধ্যা আর সকালের অঞ্জলি থেকে ভাসান- প্রতিটি উপলক্ষকে বর্ণময় আর আনন্দময় করতে কোনো অঙ্গনেই কোন কমতি রাখা হয় না। সেই সাথে কমতি রাখা চলেনা সাজ পোশাকেও।

পূজার দৌড়ঝাঁপে সারাদিন নিজেকে ব্যস্ত রাখলেও পূজার দিনগুলোতে প্রতিদিনই চাই ভিন্ন সাজ। পিংক পার্ল বিউটি স্যালুনের বিউটি এক্সপার্ট শিলা ইসলাম বলেন, পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে বুদ্ধিমত্তার সাথে পছন্দ করতে হবে পোশাকের রং।

তপ্ত রোদের কথাও মাথায় রাখতে হবে। পোশাকের ক্ষেত্রে প্রাধান্য দিন লাল, সাদা, অফহোয়াইট, মেরুন আর গেরুয়া বা কমলা, ফিরোজা, ক্রিম, টিয়া, নীল, এ্যাশ, সোনালী হলুদ রং। ভালো হয় প্রথমদিন সাদা পড়লে তার পরদিন লাল, এরপর হলুদ এভাবে পোশাক বেছে নিলে।

সাজটাও হবে সেভাবেই, সাদা কিংবা যেকোনো হালকা রঙের পোশাক বেছে নিন ষষ্ঠীর দিন সঙ্গে হালকা সাজ। ফাউন্ডেশন-ফেসপাউডার, হালকা লিপিস্টিক আর চোখে কাজল দিয়েই সাজ শেষ করুন।

সপ্তমীর দিন থেকে নবমী পর্যন্ত সকালে পূজার অঞ্জলি দিতে যাওয়ার সময় সুতি শাড়ি বেছে নিন। তবে সন্ধ্যার দিকে হতে পারে একটু জমকালো সাজ।

দশমীর দিনের সাজ হওয়া উচিৎ অবশ্যই প্রতিদিনের চেয়ে আলাদা। এদিনের মূল আকর্ষণ থাকে সিঁদুর খেলা। তাই লাল বা গাঢ় রং-এর পোশাক বেছে নেওয়াই ভালো। দশমীর দিন বেছে নিন তাঁত, জামদানি বা যেকোনো ঐতিহ্যবাহী শাড়িটি।

দিনের বেলায় সাজটা একটু হালকা হলেও মুখ ও গলায় যেন সামঞ্জস্য থাকে। হালকা করে ফাউন্ডেশন লাগিয়ে নিয়ে এর ওপরে আলতো করে পাউডার এবং সামান্য বেজ কম্প্যাক্ট বুলিয়ে নিন। চোখের পুরোটা পাতায় আইশ্যাডো লাগান। চোখের ওপরের পাতায় আইলাইনার দিয়ে লাইন টেনে নিন। দুই গালে ব্লাসন বুলিয়ে দিন। লিপস্টিকের বদলে লাগান লিপগ্লস। আগেই চুল সেট করে নিন। খোপা করে ফুল দিতে পারেন অথবা ব্লো ডাই করে খুলে রাখুন।

রাতের সাজের সময় কোনো বাধা নেই। তবে সাজুন সময় নিয়ে, যত্ন করে।প্রথমে মুখ পরিষ্কার করে টোনিং করুন। ওয়াটার বেজড্ ফাউন্ডেশন মুখে, গলায় ও ঘাড়ে লাগিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। এর ওপরে কম্প্যাক্ট পাউডার দিন।

শাড়ির সঙ্গে মিলিয়ে চোখে গাঢ় রঙের শ্যাডো লাগিয়ে নিন। চোখের নিচে টেনে কাজল দিন। চোখের ওপরের পাতায় আইলাইনার দিয়ে মোটা করে লাইন টেনে নিন। দুই বার করে মাশকারা লাগান। ঠোঁট এঁকে গাঢ় রঙের লিপস্টিক লাগিয়ে নিন। শাড়ি পরলে মানানসই টিপ পরুন সঙ্গে হাতভর্তী কাচের চুড়ি। পূজা দেখার সময় অনেক হাঁটতে হয় তাই আরামদায়ক স্যান্ডেল পরুন। পূজার বিশেষ আকর্ষণ হিসেবে খোঁপায় পড়ুন তাজা ফুলের মালা। তবেই পরিপূর্ণ হবে সাজ।

Share.

Leave A Reply

five × = 5