পাস্তুরিত দুধে জীবাণু সংক্রমণ

0

ওয়াজি তাসনিম

আইসিডিডিআর,বি-র বিজ্ঞানীরা সম্প্রতি একটি গবেষণায় প্রকাশ করেছেন বাজারের ক্রয় করা দুধ আসলে কতটুকু স্বাস্থ্যসম্মত। তাঁদের গবেষণা মতে বিভিন্ন কোম্পানির পাস্তরিত দুধ প্রচুর পরিমাণে জীবাণু সংক্রমিত। বাণিজ্যিভাবে প্যাকেটজাত পাস্তুরিত দুধের ৭৫ শতাংশই প্রায় সংক্রমিত। এমনকি সরাসরি প্যাকেটজাত দুধ পান করার কথা বলা হয়ে থাকলেও তা সরাসরি পান করার জন্য অনিরাপদ। ১৮টি উপজেলা ও ঢাকা থেকে সংগ্রহ করা প্রায় পাঁচশ পাস্তুরিত দুধের নমুনা পরীক্ষার দ্বারা নিশ্চিত করেন তাতে ই কোলাই ব্যাকটেরিয়াসহ বিভিন্ন ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া রয়েছে যা স্বাস্থ্যের জন্য হুমকিস্বরূপ।

বিজ্ঞানী লুই পাস্তুরের আবিষ্কৃত পদ্ধতি ১০০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কম তাপে ও ৭০ ডিগ্রি তাপমাত্রার উপরে ফুটানো হয়। ৩০ সেকেণ্ডের কম দুধকে এই তাপমাত্রায় রাখার পর তা দ্রুত ঠাণ্ডা করে ফেলা হয় ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে। এ অবস্থাতে তুলনামূলক কম ব্যাকটেরিয়া সংক্রমিত হয়। সংক্রমণের রয়েছে বিভিন্ন কারণ, দুধ দোয়ানোর পর থেকে শুরু করে প্রতিটি ধাপে রয়েছে সংক্রমণের সুযোগ। দুধ দোয়ানো থেকে শুরু করে দুধ কালেকশান কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া- সেন্টারে প্যাকটজাত করা, বাজারে নেয়া অর্থাৎ এই প্রক্রিয়ায় যুক্ত গোটা সরবরাহ চেইন তারা পরীক্ষা করে দেখছেন বিজ্ঞানীরা।

বিভিন্ন স্থান থেকে আইসিডিডিআর,বি-র গবেষকরা তাদের নমুনা সংগ্রহ করেছিলেন। দুধের খামার, আড়ত, হিমাগার, দুধ বিক্রেতা ও উৎপাদনকারী যায়গা থেকে নমুনা সংগ্রহ করেন তারা। সাধারণত নমুনায় ১০০ ভাগ দুধই ব্যাকটেরিয়া সংক্রমিত থাকে। আইসিডিডিআর,বি-র সহযোগী বিজ্ঞানী ও ফুড মাইক্রোবায়োলজি ল্যাবরেটরির প্রধান এবং এই গবেষণার প্রধান তত্ত্বাবধায়ক ড. মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম তাদের প্রতিবেদনে বলেছেন, তাদের গবেষণাগুলোয় তারা দেখেছেন দুধের প্রাথমিক উৎপদানকারী পর্যায়ে এর দূষণের সাথে গরুর প্রজনন প্রক্রিয়া, গরুর দ্বারা উৎপাদিত দুধের পরিমাণ, দুধ দোয়ানোর সময়, এবং যিনি দুধ দোয়ান তার হাত ধোয়ার অভ্যাসের মতো বিভিন্ন বিষয় জড়িত।

এ ক্ষেত্রে প্রতিটি পর্যায়ে দুধ শীতল রাখা প্রয়োজন যাতে সংক্রমণ না ঘটে। সেই সাথে যত্নবান হতে হবে দুধ দোয়ানো, সংগ্রহ ও সরবরাহ, সংরক্ষণ এবং পাস্তুরিত পর্যায়ে।

তবে বাজারের সকল দুধ সংক্রমিত নয়। কিংবা সংক্রমণের ফলে তা পুরোপুরি বর্জনীয় না। নির্দিষ্ট তাপমাত্রা ও সময়ে ফুটানো দুধ হতে পারে মানব দেহের জন্য পুরোপুরি নিরাপদ। সে ক্ষেত্রে ইউএইচটি মিল্ক (আলট্রা হাই টেম্পারেচার) একটি পরিপুর্ণ সমাধান। প্রায় ছয় মাস পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যাবে এটি।

Share.

Leave A Reply

sixty four ÷ = sixteen