নৌ-চলাচল ডিজিটাল করতে কাজ করবে খান বাহাদুর গ্রুপ

0

(ঢাকা ১৩ মার্চ ২০১৮): ঢাকাসহ উপকূলীয় এলাকায় নৌ-নিরাপত্তা উন্নয়নে প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে খান বাহাদুর গ্রুপের সহযোগী প্রতিষ্ঠান মিখাইল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড কনস্ট্রাকশন লিমিটেড। নৌ-মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে দেশের নৌ-চলাচল পদ্ধতি ডিজিটাল এবং নৌ-ব্যবস্থাপনা উন্নত হবে। ফলে দীর্ঘমেয়াদে নৌপথে কমবে দুর্ঘটনা।

এস্টাবলিশমেন্ট অফ গ্লোবাল মেরিটাইম ডিসট্রেস ও সেফটি সিস্টেমস (জিএমডিএসএস) এবং ইন্টিগ্রেটেড মেরিটাইম নেভিগেশন সিস্টেমস (ইজিআইএমএনএস) প্রকল্প সম্পন্ন হলে “ ইউনাইটেড নেশনস কনভেনশন অন ল অফ দ্যা সি ও ইন্টারন্যাশনাল মেরিটাইম কনভেনশন সেফটি অফ লাইফ অ্যাট সি” এই দুই আন্তর্জাতিক সনদের শর্তও পূরণে সক্ষম হবে বাংলাদেশ।

এই প্রকল্পের মাধ্যম্যে জাহাজ ও তীরবর্তী স্থানের মধ্যকার ২৪ ঘন্টা যোগাযোগ রক্ষায় ঢাকায় যোগাযোগ ও নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র স্থাপনের পাশাপাশি কোস্টাল রেডিও স্থাপন করা হবে। ভেসেল ট্রাফিক ম্যানেজম্যান্ট এর মাধ্যমে নৌ-নিরাপত্তা যেমন প্রসারিত হবে তেমনিভাবে বর্তমান লাইট হাউজের আধুনিকীরণ হবে। পাশাপাশি প্রয়োজনীয় এলাকায় নতুন লাইটহাউজও স্থাপন হবে। উল্লিখিত কার্যক্রমগুলো সম্পন্ন হলে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে, উপকূলীয় এলাকায় এবং সমুদ্রে চলাচলকারী সকল নৌ-যানের উদ্ধার কার্যক্রম সমন্বয় সাধন আরও সহজ ও দ্রুত হবে।

এম ব্যাংক অফ কোরিয়া ও বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে এই প্রকল্প ঢাকার আগারগাও, দুবলার চর, কুয়াকাটা, ডাল চর, নিঝুম দ্বীপ, কুতুবদিয়া, কক্সবাজার সদর এবং সেন্ট মার্টিনে কাজ করবে ২০১৯ সালের নভেম্বর পর্যন্ত। মিখাইল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড কনস্ট্রাকশন লিমিটেডের পাশাপাশি এই প্রকল্পে কাজ করবে দুই বিদেশি সংস্থা এলজি সিএনএস ও সামহি।

Share.

Leave A Reply

− 1 = two