নিয়মতান্ত্রিক জীবনই সুন্দর জীবন

0

আমিনুল ইসলাম নাবিল-

শৈশব থেকে পড়াশুনা-খেলাধুলাসহ সকল কাজেই ছিলেন দুর্দান্ত। বাবা ছিলেন সিলেট এম সি কলেজের একজন শিক্ষক। বলছি স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের রেজিস্ট্রার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মির্জা এজাজুর রহমান– এর কথা।

শিক্ষাজীবনের শুরুটা সিলেটে। অতঃপর সপ্তম শ্রেণি হতে দ্বাদশ শ্রেণির পাঠ সম্পন্ন করেন চট্টগ্রাম ফৌজদারহাট ক্যাডেট কলেজে। ১৫ তম অবস্থান নিয়ে কুমিল্লা বোর্ডে স্ট্যান্ড করার কৃতিত্ব অর্জন করেন।

১৯৮১ সালে যুক্ত হোন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে আর অফিসার পদে উন্নীত হোন ১৯৮৩ সালে। নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেছেন ইরান ও পাকিস্তানের বাংলাদেশ দূতাবাসে। সেনাবাহিনীতে থাকাকালীন তিনি একাধারে কাজ করেছেন এডমিনিস্ট্রেশন অ্যাান্ড ইন্সট্রাকটর বিভাগে। সবশেষ তিনি ছিলেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হিসেবে।

ফার্স্ট ডিভিশন ক্রিকেট খেলারও অভিজ্ঞতা আছে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মির্জা এজাজুর রহমানের। ২০১৭ সালের মে মাসে যুক্ত হোন স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের রেজিস্ট্রার হিসেবে। স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশকে নিয়ে তাঁর ব্যাপক স্বপ্ন ও পরিকল্পনা। সামনে চ্যালেঞ্জ স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণ।

রেজিস্ট্রার জানান, স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশকে প্রথম সারির বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করাই তাঁর লক্ষ্য। এর জন্য প্রয়োজন সকলের সম্মিলিত সহযোগিতা।

দায়িত্বরত হওয়ার পর থেকে সবচেয়ে বড় কাজ ছিল ৫ম সমাবর্তন আয়োজন করার। সেই বিশাল কাজ সফলতার সাথে পাড়ি দিয়েছেন, যেখানে অংশ নেয় স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের ইতিহাসে রেকর্ড সংখ্যক গ্র্যাজুয়েট। এছাড়াও তাঁর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ভেন্যু হিসেবে নির্ধারিত হয় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র। জাতিসংঘ ফোর্স কমান্ড মিশন এ অংশ নেওয়াসহ তিনি বিজিবি পুনর্গঠন এ বিশেষ অবদানের জন্য পুরস্কৃত হয়েছেন বিজিবিএম পদকে।

তরুণ প্রজন্মের উদ্দ্যেশ্যে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মির্জা এজাজুর রহমান এর ভাষ্য, “ তরুণ প্রজন্মকে বিরত থাকতে হবে মাদকসহ সকল উগ্রপন্থা হতে। যথাযথ ব্যবহার করতে হবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও সকল ধরনের প্রযুক্তির। নিয়মতান্ত্রিক জীবনই সুন্দর জীবন।’’

Share.

Leave A Reply

eighty one − = seventy five