নারীদের উৎপাদিত পণ্যের বাজার সৃষ্টি করবে জয়িতা ফাউন্ডেশন

0

২৬২ কোটি টাকা ব্যয়ে “জয়িতা ফাউন্ডেশনের সক্ষমতা বিনির্মাণ” প্রকল্প গ্রহণ করেছে সরকার। নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে একটি বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠান হিসাবে জয়িতা ফাউন্ডেশনের সক্ষমতা বাড়াতে সরকার এ প্রকল্প গ্রহণ করেছে।

প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে এই ফাউন্ডেশনের আওতায় কর্মরত তৃণমূল পর্যায়ের নারী উদ্যোক্তা সমিতিগুলোর ব্যবসানুকূল প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা বাড়বে। যার মাধ্যমে উদ্যোগী নারীদের সব প্রয়োজনীয় সহায়তা সেবা প্রদান ও ব্যবসা অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টিসহ নারীবান্ধব ভৌত বাজার কাঠামো গড়ে তোলা সম্ভব হবে। একইসঙ্গে বহুমূখী ব্যবসা উদ্যোগের জন্য নারীদের প্রয়োজনীয় সক্ষমতা ও দক্ষতা বাড়ানো সম্ভব হবে।

নারীদের উৎপাদিত পণ্যের বাজার সৃষ্টি করবে জয়িতা ফাউন্ডেশন। সেক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানটি নারী উদ্যোক্তা সমিতি ও ব্যক্তি নারী উদ্যোক্তাদের বহুমূখী ব্যবসা, উদ্যোগ সফল ও ফলপ্রসূভাবে পরিচালনা করতে সক্ষম করে গড়ে তুলতে পারে তার ব্যবস্থা নিশ্চিত করা। যার জন্য প্রয়োজন জয়িতা ফাউন্ডেশনের সক্ষমতা বাড়ানো। তাই জয়িতা ফাউন্ডেশনের সক্ষমতা বাড়াতে ২৬২ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্প গ্রহণ করেছে সরকার।

জানা গেছে, এই প্রকল্পটির বাস্তবায়নের কাজ শুরু হবে ২০১৯ সালের জানুয়ারি মাসে। প্রকল্পের কাজ শেষ হবে ২০২৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর। প্রকল্পটি রাজধানী ঢাকার ধানমন্ডি এলাকায় বাস্তবায়িত হবে।

প্রকল্প প্রস্তাবনায় জানা গেছে, প্রকল্পের আওতায় প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা বাড়াতে মানব সম্পদ ব্যবস্থাপনা ও উন্নয়ন সক্ষমতা, ভৌত অবকাঠামোগত সক্ষমতা, ব্যবসা উদ্যোগ উন্নয়ন সক্ষমতা, নারী উদ্যোক্তা উন্নয়ন সক্ষমতা, সংস্কার ও পরিবর্তন ব্যবস্থাপনা সক্ষমতা বিনির্মাণ করা হবে।

প্রতিষ্ঠানটির উদ্দেশ্য হচ্ছে, নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে একটি বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠান হিসাবে জয়িতা ফাউন্ডেশনের সক্ষমতা বাড়ানো, জয়িতা ফাউন্ডেশনের আওতায় কর্মরত তৃণমূল পর্যায়ের নারী উদ্যোক্তা সমিতিগুলোর ব্যবসানুকূল প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা বাড়ানো, সব প্রয়োজনীয় সহায়তা সেবা দেওয়া ও ব্যবসা অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টিসহ নারীবান্ধব ভৌত বাজার কাঠামো গড়ে তোলা এবং বহুমূখী ব্যবসা উদ্যোগের জন্য নারীদেরকে প্রয়োজনীয় সক্ষমতা ও দক্ষতা দান করা।

Share.

Leave A Reply

three × = three