দর্শকদের সমর্থন চাইলেন মামুনুল

0

দর্শক যে দ্বাদশ ব্যক্তির কাজ করে তার প্রমাণ বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফাইনাল। মালয়েশিয়ার কাছে প্রথমার্ধে ০-২ গোলে পিছিয়ে যাওয়া বাংলাদেশকে বিরতির পর জাগিয়ে তুলেছিল ‘সমর্থক’ টনিক। অদম্য মানসিকতায় ২-২ করে ফেলা বাংলাদেশ শেষ পর্যন্ত ম্যাচটা হারলেও ২৫ হাজার দর্শক হাসিমুখেই ঘরে ফিরেছেন। বিশ্বকাপ বাছাইয়ে জর্ডান ম্যাচের আগে দর্শকদের তেমন সমর্থন চাইলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম।

‘ফুটবলে দর্শক খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। গ্যালারি থেকে তারা যদি উত্সাহিত করেন, আমরাও কিন্তু ভালো ম্যাচ উপহার দেয়ার জন্য সর্বস্ব উজাড় করে দিই। জর্ডানের বিপক্ষে আমরা যদি সামর্থ্যের পুরোটা দিতে পারি তবে ভোলা ফলাফল হবে’— ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের এ মিডফিল্ডার।

অস্ট্রেলিয়া ম্যাচ শেষ করে শুক্রবার রাতে ঢাকায় পৌঁছে বাংলাদেশ দলের সদস্যরা। শনিবার থেকেই শুরু হয় জর্ডান ম্যাচের প্রস্তুতি। এ প্রসঙ্গে মামুনুল ইসমলাম বলেন, ‘আমি আগেও বলেছি, অস্ট্রেলিয়া থেকে ফেরার পর আমরা কঠোর অনুশীলন করেছি, পর্যাপ্ত বিশ্রামও পাইনি। দেশের মাটিতে ভালো ফলাফলের জন্যই এ কঠোর পরিশ্রম। আমাদের প্রতিপক্ষ খুবই শক্তিশালী। তার পরও আমরা ভালো করার জন্য প্রস্তুত।’

বিগত ম্যাচগুলোর প্রসঙ্গ টেনে বাংলাদেশ অধিনায়ক আরো বলেন, ‘ঘরের মাঠে আমরা ৩-৪ ম্যাচে ভালো ফুটবল খেলেছি। তবে দুর্ভাগ্যজনকভাবে কিরগিজস্তানের কাছে হেরেছি। ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে কিন্তু আমরা ভালো নৈপুণ্য দেখিয়েছি, সুযোগও সৃষ্টি করেছিলাম।’ এ মিডফিল্ডার যোগ করেন, ‘আমরা কখনই হারতে চাই না, জয়ের জন্যই খেলি। কিন্তু আপনাকে দুই দলের মাঝে শক্তিমত্তার দিক থেকে দূরত্ব্বটা বুঝতে হবে।’

ম্যাচের ফলাফল যাই হোক, মাঠে নিজেদের সেরাটা দেয়ার প্রত্যয় ছিল ভারতীয় সুপার লিগের ফ্র্যাঞ্চাইজি অ্যাতলেটিকো ডি কলকাতার সাবেক মিডফিল্ডারের কণ্ঠে, ‘ম্যাচে যদি নিজেদের সেরাটা দিতে পারি তবে এটি হবে আমাদের উন্নতির নিদর্শন। সেরাটা দেয়ার লক্ষ্যেই আজ মাঠে যাব।’

Share.

Leave A Reply

seventy two ÷ = twelve