তেওতা জমিদার বাড়িতে একদিন

0

মানিকগঞ্জ জেলার তেওতা গ্রামে একটি অতিপ্রাচীন জমিদার বাড়ি আছে। এই জমিদার বাড়ি নির্মাণ করেছিলেন রাজা হিমসংকর রায়।

জমিদার বাড়িটি দেখতে অনেক সুন্দর। বাড়িটিতে ৭ টি পুকুর ছিল। বর্তমানে দুটি বিদ্যমান রয়েছে। একটি সান বাঁধানো পুকুর ঘাট রয়েছে। পশ্চিম পাশের পুকুর পাড়ে একটি তিন মাথা বিশিষ্ঠ তাল গাছ আছে।

জমিদার বাড়িটি যমুনা নদীর পাড়ে অবস্থিত। চারপাশের দেয়াল এখন আর নেই। রক্ষনাবেক্ষণ এর অভাবে হারিয়ে যাচ্ছে এই ঐতিহ্যবাহি রাজার বাড়ি। বাড়িটির অনেক জায়গা দখল হয়ে গেছে।

বাড়ির প্রবেশদ্বারে একটি জেলখানাও আছে। বিশেষ দিনে পর্যটকদের ঢল নামে এখানে। অনেক ছবি, নাটক এবং মিউজিক ভিডিওর শুটিং করা হয়েছে এখানে।

বনভোজনের জন্য এখানে অনেক লোকজনের সমাগম হয়। যদি এর পরিবেশ আরও সুন্দর করা যেত তাহলে লোকজনের আনাগোনা হয়ত আরও বাড়ত। রাজা হিমসংকর রায় এর মেয়েকে বিয়ে করেছেন আমাদের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম। তার স্ত্রীর নাম প্রমেলা দেবী।

এখানে কবি নজ্রুল ইসলাম অনেক কবিতা ও তার স্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে প্রেমের গান লিখেছেন। ঐতিহ্যবাহি জমিদার বাড়ি সংরক্ষনে কারও কোন উদ্যোগ নেই। সরকার এর পক্ষ থেকে এখনও সংরক্ষনের কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। যদি সরকারের পক্ষ থেকে কোন বিশেষ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হত তাহলে হয়ত এর সৌন্দর্য্য আরও বৃদ্ধি পেত।

Share.

Leave A Reply

− three = 1