জীবনকে উপলব্ধি করার অসাধারণ সিনেমা ‘দ্যা পারসুইট অব হ্যাপিনেস’

0

সাদমান শাওন

জীবনকে উপলব্ধি করার অসাধারণ সিনেমা ‘দ্যা পারসুইট অব হ্যাপিনেস’ । জীবন সংগ্রাম,ব্যর্থতা, ও সফলতা সব মিলিয়ে ‘দ্য পারসুইট অব হ্যাপিনেস’। জীবনের উত্থান পতনের মদ্ধেই আমাদের জীবন। তেমনি এই সিনেমাটিতেও জীবন রয়েছে।

এই সিনেমাতে বাবার ভূমিকায় ক্রিস গার্ডনার যিনি তাঁর জীবনের সমস্ত সঞ্চয় বিনিয়োগ করে portable bone density scanners(হাড়ের ঘনত্ব রিড করতে পারে এবং সহজে বহন করা যায় এমন স্ক্যানার)-এর ব্যবসা শুরু করেন। তার ৫ বছরের সন্তান ক্রিস্টোফার এবং ক্রিস গার্ডনারের স্ত্রী লিন্ডা একজন হোটেল পরিচারিকা। তাঁর স্ত্রী এবং একমাত্র সন্তান কে নিয়ে সে একটা ভাঁড়া করা বাসায় থাকে।

ক্রিস অনেক ঘুরে ঘুরে স্ক্যানার মেশিন বিক্রি করে,একটা স্ক্যানারের দাম ২৫০ ডলার। ভাঁড়া করা বাসা এবং ছেলের লেখাপড়া এবং ডে’কেয়ারের খরচ যোগাতে তাকে প্রতি মাসে কমপক্ষে দুটি স্ক্যানার বিক্রি করতে হয়। সাথে আরো একটি স্ক্যানার তাকে বিক্রি করতে হয় সারা মাস ভালভাবে সংসার চালানোর জন্য।কিন্তু একটা মাসে তাঁর একটি স্ক্যানারও বিক্রি হয়না।

হতাশায় ঘুরতে থাকে কে প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে। এই দুর্দিনে আরও দুর্দিন এসে হাজির, গাড়ী পার্কিং-এর জায়গা না থাকায় পুলিশ এসে গাড়ী থানায় নিয়ে যায়,এদিকে একের পর এক বিল জমা হতে থাকে।কোন বিলই পরিশোধ করতে পারেনা।

অন্যদিকে, ক্রিস গার্ডনার সুখের সন্ধানে বার বার হোঁচট খাচ্ছিল আর হোঁচট খাওয়ার সাথে সাথে যেখানে সাহস জুগিয়েছে ছোট্ট ছেলে ক্রিস্টোফার এর প্রতি তার অমায়িক ভালোবাসা। এমনকি নিজের সম্মানের দিকে তাকিয়ে মিথ্যের আশ্রয় নিতে হয় আবার, মাসের পর মাস বাসা ভাড়া দিতে না পারায় তার ছোট ছেলেটিকে নিয়ে টয়লেটেও রাত কাটাতে হয়। এতো দুঃখ দুর্দশাতেও বাবা ছেলের এতো সুন্দর ধৈর্যশীল সম্পক যা না দেখলে বুঝবেন না। বাবা ছেলের এমন কেমিস্ট্রি ফুটিয়ে তোলা অভিনয় হয়তো উইল স্মিথ এবং তার নিজ ছেলে জাদেন ক্রিস্টোফার ছিল বলেই একমাত্র সম্ভম ছিল।

জীবনে কঠিনতম অবস্থার সম্মুখীন হলে এই সিনেমাটি আপনাকে অনুপ্রেরণা দিবে। কষ্ট,অনুপ্রেরনা মূলক প্রতিটি স্পিচ আর ছেলের বাবার সাথে করে যাওয়া খুনসুটি গল্পগুলো সত্যিই আপনাকে আবেগাপ্লুত করবে। জীবন যে অনেক সময় কঠিন হয়ে উঠে তা বুঝিয়ে দিবে সিনেমাটি।
জীবনের সবকিছুই নিজের বিপরীতে যেতে থাকলেও জীবনযুদ্ধে হাল না ছাড়া একজন বাবার গল্প। সিনেমাটির শেষের আগে এই মুল্যবান বক্তব্য ক্রিস্ট গাডনার তার ছেলেকে বলে-

‘Don’t ever let someone tell you that you can’t do something,Not even me.You got a dream you gotta protect it.When people can’t do something themselves,They’re gonna tell you that you can’t do it.You want something,Go get it’

পরিচালনাঃ গ্যাব্রিয়েল মুচিনু ( Gabriele Muccino)
অভিনয়ঃ উইল স্মিথ, থ্যান্ডি নিউটন,জ্যাডেন স্মিথ
রানিং টাইমঃ ১ ঘন্টা ৫৭ মিনিট
রিলিজ ডেটঃ ১৫ ডিসেম্বর ২০০৬
রেটিং : ৮

Share.

Leave A Reply

− two = four