চ্যালেঞ্জে পড়তে হবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে

0

দলের সেরা দুই ক্রিকেটার নেই ইনজুরির কারনে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসানকে ছাড়াই তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার মনে করছেন এ সিরিজে চ্যালেঞ্জ আছে। সিরিজ শুরু হবে ২১ অক্টোবর। ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে বিসিবি। বাংলাদেশ এই সিরিজে ভালো করার প্রত্যাশা করছে। হাবিবুল বাশার গতকাল বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সংবাদ মাধ্যমের সাথে কথা বলেছেন।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে কী প্রত্যাশা?
রোমাঞ্চকর হবে সিরিজটি। জিম্বাবুয়ে অনেক ভালো দল। সিরিজটি অনেক বড় চ্যালেঞ্জ আমাদের জন্য। কারন বড় দুইজন পারফর্মার খেলতে পারবে না। এই সিরিজে পারফরম্যান্সের সঙ্গে তাদের অভিজ্ঞতার অভাবটাও অনুভব করব। বিশ্বকাপ সামনে। কিছু খেলোয়াড়কে দেখার ছিলো। আমি সব মিলিয়ে আশাবাদী।

ফজলে রাব্বীকে দলে নেওয়ার কারণ?
তিন বছর ধরে সে বদলে গেছে। পরিবর্তন এসেছে খেলায়। এখন সে পরিনত। ব্যাটিংটা বদলে গেছে। আগে আগ্রাসী ব্যাটিং করত। আয়ারল্যান্ড সিরিজে দেখেছি সে দলের প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যাটিং করছে। দলের দরকারে বড় শর্ট খেলে। স্পিন বল করতে পারে। যারা সিনিয়র আছে তাদের খেলার সুযোগটা কম থাকত। এখন প্রচুর প্রথম শ্রেণীর ম্যাচ খেলছে পারফর্মও করছে তারা। ৩০ বছরের পর আগে একটা ছেলের ফিটনেস ধরে রাখা কঠিন ছিল।

মুমিনুল, মোসাদ্দেক, সৌম্যের বাদ পড়া?
মুমিনুল বাদ পড়াটা দুর্ভাগ্য বলব। আমার সহানুভূতি তার জন্য। তার ওয়ানডে ক্যারিয়ার কখনই শেষ হয়ে যায়নি আমার মনে হয়। সামনে আমাদের অনেক সিরিজ আছে। জিম্বাবুয়ের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নিউজিল্যান্ডের পর বিশ্বকাপ আছে। মোসাদ্দেকের ফর্ম নিয়ে খুব একটা সন্তুষ্ট নই। সে ব্যাট করছে সাত নম্বরে। সেখানে সে বেশি ভালো করতে পারছে না। সাত নম্বরে আমাদের একজন বোলিং অলরাউন্ডার দরকার যে মূলত বোলিং করে থাকেন সঙ্গে ব্যাটিং করতে পারেন। এজন্য সাইফউদ্দিনকে দলে নেওয়া হয়েছে।

Share.

Leave A Reply

+ 63 = sixty eight