যেভাবে চিনবেন আসল খেজুরের গুড়

0

শীত প্রায় চলেই এসেছে। ইতিমধ্যে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে খেজুরের গুড়সহ বিভিন্ন ধরণের গুড়। তবে ভেজালের ভিড়ে আসল নকল বোঝা হয়ে পরেছে কঠিন। খেজুরের গুড় দেখে অনেকে বুঝতে পারেন না যে, কোন গুড়টা আসল আর কোন গুড়টা নকল। কিন্তু কিছু কৌশল অবলম্বন করলেই সহজে চেনা যাবে আসল গুড়। আসুন জেনে নেওয়া যাক ভালো খেজুরের গুড় চেনার প্রাথমিক কিছু কৌশল।

অনেক জিনিসই আমরা কেনার সময় আসল-নকল যাচাই করে তারপরে ক্রয় করি। কিন্তু গুড়ের ক্ষেত্রে আমরা শুধু চোখে দেখেই কিনে নেই। তবে আসল গুড় চেনার জন্য অবশ্যই কেনার আগে আপনাকে সচেতনভাবে গুড় দেখে তারপরে কিনতে হবে। গুড় কেনার সময় অবশ্যই যাচাই করবেন-

কেনার সময় গুড়ের ধারটি দুই আঙুল দিয়ে চেপে দেখবেন গুড় নরম কিনা। যদি গুড়টি নরম হয় তবে বুঝবেন গুড়টি ভীষণ ভাল। সেই গুড়ে অন্যকিছু মেশানোর সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

গুড় কিছুটা খেয়ে দেখবেন যদি কিছুটা নোনতা লাগে তবে বুঝতে পারবেন এতে কিছু ভেজাল মেশানো রয়েছে। এটি অনেক পুরনো গুড়, মনে রাখবেন গুড় যত পুরনো তাতে নুনের মাত্রা তত বেশি।

গুড় যদি স্ফটিকের মতো একটু বেশি চকচক করে, তবে বুঝবেন গুড়টি যে খেজুর রস দিয়ে তৈরি করা হয়েছিল তার স্বাদ এতটা মিষ্টি ছিল না। আর তাই গুড়টিকে বেশি মিষ্টি করতে প্রচুর পরিমাণে চিনি মেশানো হয়েছে। বাজারে আপনি কিছু তেতো স্বাদের গুড় পাবেন, সেগুলো বহুক্ষণ ধরে জ্বাল দেওয়া হয়েছে। তাই গুড়টির স্বাদ একটু তিতকুটে।

ভাল গুড় দেখে চিনে নেওয়া সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দর্শনেই গুণ বিচার করা যায়। গুড় কেনার সময় অবশ্যই দেখে নেবেন তার রঙ।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দর্শনেই গুণ বিচার করা যায়। গুড় কেনার সময় তার রঙ অবশ্যই দেখে নেবেন। ভাল গুড়ের রঙ গাঢ় বাদামি হয়। হলদেটে গুড় দেখলেই বুঝবেন তাতে রাসায়নিক মেশানো হয়েছে।

Share.

Leave A Reply

ten ÷ five =