‘গরবিনী মা ২০১৮’ পদক পেলেন অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌসের মা

0

ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (সাবেক- আয়েশা মেমোরিয়াল হাসপাতাল) বিশেষ সম্মাননা পুরস্কার ‘গরবিনী মা ২০১৮’ পদক পেয়েছেন স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের জার্নালিজম, কমিউনিকাশন অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের উপদেষ্টা অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌসের মা রেজিয়া বেগমসহ ১১ জন।

বিশ্ব মা দিবস উপলক্ষে ৫ম বারের মতো এবারও রবিবার (১৩ মে) রাজধানীর মহাখালী ডিওএইচএস-এ রাওয়া কনভেনশন সেন্টারের (হল-২)এ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চেয়ারম্যান ও এফবিসিসিআই পরিচালক প্রীতি চক্রবর্ত্তী’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন দৈনিক প্রথম আলো’র প্রধান বার্তা সম্পাদক শওকত হোসেন মাসুম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. আশীষ কুমার চক্রবর্ত্তী।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, আমি ছোটবেলায় খুব দুষ্টু প্রকৃতির ছিলাম। আমার মা’ই আমাকে শান্ত করেছে। যোগ্য করেছে দেশের মানুষের সেবা করার। আমাদের মায়েদের ভালোবাসার জন্যই আমরা সমাজে প্রতিষ্ঠিত হয়ে কথা বলতে পারি। আমাদের নবীজীও বার বার মাকে সম্মান করার কথা বলেছেন। আমি চাই ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল আরও এমন সেবামূলক কাজ করুক।

শওকত হোসেন মাসুম বলেন, বাবারা বরাবরই একটু নিরহ প্রকৃতির হয় এবং মারা একটু রাগী হন। পরিবারে একজন সন্তানের মানুষ হওয়ার পেছনে মায়ের ভূমিকাই সবচেয়ে বেশি থাকে। তাই মায়েদের একটু রাগী হতে হয়। আমি চাই প্রত্যেক মাই তার সন্তানদের সাফল্য যেন দেখে যেতে পারেন।

ডা. আশীষ কুমার চক্রবর্ত্তী বলেন, পৃথিবীতে স্বার্থহীন ভালোবাসাই আমাদের মায়ের। মা আমাদের প্রথম ও শেষ আশ্রয়। তাই প্রত্যেকটি সন্তানের উচিৎ মায়ের প্রতি অধিক শ্রদ্ধাশীল হওয়া। তিনিই গরবিনী মা, যার সন্তানকে নিয়ে দেশ ও জাতি গর্ব করতে পারে। আজ গরবিনী মায়েদের কয়েক জনকে পুরস্কৃত করতে পেরে ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল গর্বিত।

প্রীতি চক্রবর্ত্তী বলেন, আজ ১১ জন মাকে সম্মান দিতে পেরে আমাদের কাছে মনে হয়েছে আমরা সারা বিশ্বের মায়েদের সম্মান দিতে পেরেছি। মায়েরা তখনই যথাযথ সম্মানিত হবে, যখন সন্তানরা ভালো মানুষ হবে ও মাদক মুক্ত হবে। আমাদের ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পঞ্চম বারের মতো মায়েদের হাতে এই সম্মাননা পুরস্কার তুলে দিলো। আশা করি আমাদের এ প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস এর মা-রেজিয়া বেগম ছাড়াও বাকি যে ১০ জন এ পদক পেয়েছেন তাঁরা হলেন, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন এর মা-মনোয়ারা বেগম, অর্থনীতিবিদ ও সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি) এর সম্মাননীয় ফেলো প্রফেসর ড. মোস্তাফিজুর রহমানের মা-পেয়ারা রহমান, সিএমপি এর এডিশনাল ডিআইজি আমেনা বেগম বিপিএম এর মা-জাহানারা বেগম, বিশ্বসেরা ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মর্তুজা এর মা-হামিদা মর্তুজা বলাকা, কন্ঠশিল্পী কুমার বিশ্বজিৎ এর মা-শোভা রাণী দে, বিএসএমএমইউ এর অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব এর মা-আয়েশা মাহতাব, অভিনেতা মোশাররফ করিম এর মা-মমতাজ বেগম, বিদ্যা সিনহা সাহা মীম এর মা-ছবি সাহা এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অদম্য মেধাবী মোখলেছুর রহমানের মা-মোছা. মনোয়ারা বেগম।

Share.

Leave A Reply

76 ÷ nineteen =