ক্রিকেটার হবার স্বপ্ন দেখেন আমড়া বিক্রেতা সাব্বির

0

রাজধানীর ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরে ওভারব্রিজের নীচে আমড়া বিক্রি করেন সাব্বির। একদিন জাতীয় দলে খেলার স্বপ্ন দেখেন তিনি।

সাব্বিরের পুরো নাম মোহাম্মদ সাব্বির। বয়স প্রায় ২৩।  ১২ বছর আগে নিজ গ্রাম কুমিল্লা ছেড়ে জীবিকার সন্ধানে ঢাকায় পাড়ি জমিয়েছেন। লেখাপড়ায় মনোযোগী থাকলেও অভাবের তাড়নায় ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত পড়তে পেরেছিলেন। তিন ভাই ও বাবা মায়ের সংসারে অভাবের ছায়া নেমে আসে একমাত্র কর্মক্ষম ব্যক্তি মানে বাবা মারা যাবার পর। এখন ঢাকায় মা ও তিন ভাইয়ের ছোট্ট সংসার।

ঢাকায় আসার পর দুই ভাই মিলে ছোলা মুড়ির ব্যবসা শুরু করেন। পাশাপাশি মৌসুমি ফলের পসরা সাজিয়ে বসেন। আজ ১০/১২ দিন ধরে আমড়া বিক্রি করছেন তিনি। এতো কিছু থাকতে আমড়া বিক্রি করছেন কেন? এই প্রশ্নের জবাবে বলেন মৌসুমি ফল আমড়ার চাহিদা বেশি। মাত্র ১০ টাকায় পথচারীরা দিব্যি আমড়া কেনে। দিনশেষে একেবারেরও খারাপ কামাই হয়না। কর্মদিবসগুলোতে ২০০-৩০০ টাকা রোজগার হলেও ছুটির দিনে ভালোই রোজগার হয় তার। নিজে লেখাপড়া কম করলেও ছোটভাই সুজনকে লেখাপড়া শেখাচ্ছেন। সুজন বর্তমানে তেজগাঁও কলেজের উচ্চমাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলে আপনার নামে একজন ক্রিকেটার আছেন। তাকে চেনেন? জবাব দিতে গিয়ে চোখ মুখ আনন্দে চীকচীক করে ওঠে সাব্বিরের। ধীরে ধীরে তার স্বপ্নের ঝাঁপি খুলতে থাকে। বলেন একদিন তিনি নিজেও জাতীয় দলে ক্রিকেট খেলতে চান। নিয়মিত ক্রিকেট খেলেন কিনা এই প্রশ্নের উত্তরে বলেন তিনি প্রায় প্রতিদিন আবাহনী মাঠে বা ধানমণ্ডি লেকে বন্ধুদের সাথে ক্রিকেট খেলেন। তবে কোন প্রশিক্ষকের কাছে কলাকৌশলগুলো শিখতে পারলে অনেক ভালো খেলবেন এমনটাই মনে করেন তিনি।

ওভারব্রিজের কাছে থাকার কারণে পথচারীদের ওভারব্রিজ ব্যবহার পর্যবেক্ষণ করতে পারেন সহজেই। তার মতে এই ব্যস্ত নগরীর ব্যস্ত রাস্তায় সকলের রাস্তা পারাপারে ওভারব্রিজ ব্যবহার করা উচিত অথবা সিগন্যাল পড়লে সাবধানতার সাথে রাস্তা পার হওয়া উচিত। কারণ সময়ের চেয়ে জীবনের মূল্য অনেক বেশি।

কথার এক পর্যায়ে ক্রিকেটার হওয়ার একরাশ স্বপ্ন নিয়ে ক্রেতার কাছে আমড়া বিক্রিতে ব্যস্ত হয়ে যান তিনি।

Share.

Leave A Reply

eight × = 40