অপরূপ সৌন্দর্যের আধার সুন্দরবন

0

মো. মাহবুব আলম

বাংলাদেশের সুন্দরবন খুলনা, বাগেরহাট ও সাতক্ষীরা জেলায় অবস্থিত একটি পৃথিবীর বৃহত্তম প্রাকৃতিক ম্যানগ্রোভ বন, যা কিনা বঙ্গোপসাগরের কোল ঘেঁষে অবস্থিত। সুন্দরবনের আয়তন প্রায় ৬,০১,৭০০ হেক্টর যা দেশের আয়তনের ৪.১৩% এবং বন অধিদপ্তর নিয়ন্ত্রিত বনভূমির পরিমাণ ৩৮.১২%। বাংলাদেশের সুন্দরবন বিশ্ব ঐতিহ্যে এর মধ্যে ৩ টি বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য নিয়ে গঠিত করে, এতে ১,৩৯,৭০০ হেক্টর বনাঞ্চলকে ইউনেস্কো ১৯৯৭ সালে বিশ্ব ঐতিহ্য ঘোষণা করে।

সুন্দরবনে বিভিন্ন ধরনের সুন্দর সুন্দর গাছ পালা রয়েছে, গাছগুলোর মধ্যে সুন্দরী, গেওয়া, কেওড়া, পশুর, বাইন, কাঁকড়া ইত্যাদি বনের প্রধান গাছপালা। এই বনের সবুজ গাছপালা দেখলে মন জুড়িয়ে যায়।

এই বনে রয়েছে নানা ধরণের বন্যপ্রাণী যেমন: রয়েল বেঙ্গল টাইগার, হরিণ, বানর, শুকর, কুমির, ডলফিন, গুইসাপ, অজগর, হরিয়াল, বালিহাঁস, গাংচিল, বক, মদনটাক, মরালিহাঁস, চখা, ঈগল, চিল মাছরাঙা ইত্যাদি।

বনের মধ্যে দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে অসংখ্য খাল এবং নদী নালা। বনের প্রধান নদীগুলো হলো-পশুর, শিবসা, বলেশ্বর, রায়মংগল। নদীতে নানা প্রজাতির মাছ আছে, এর মধ্যে অন্যতম মাছগুলোর নাম না বললেই নয়। ইলিশ, লইট্টা, ছুরি, পোয়া, রূপচাঁদা, ভেটকি, পারসে, গলদা চিংড়ি, বাগদা চিংড়ি, চিতরা ইত্যাদি মাছ পাওয়া যায়, এই মাছ ভীষণ সুস্বাদু। মৎস্য সম্পদেরও বিরাট ভূমিকা পালন করে আসছে সুন্দরবনের এই নদীগুলো। এ বনের উপর নির্ভর করে জীবিকা নির্বাহ করে অনেকেই, বলা যায় মাছ ধরা, কাঠ সংগ্রহ করা, মধু আহরণ করা এই সবই হয় এই সুন্দরবনকে ঘিরে।

প্রাকৃতিক মনোরম সৌন্দর্য উপভোগ করতে চাইলে ছুটির দিনে ঘুরে আসতে পারেন সুন্দরবনে। বঙ্গোপসাগরের কোল ঘেঁষে প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্য আপনার ক্লান্তিময় মনকে করবে সতেজ ও প্রাণবন্ত।

লেখক- এক্সিকিউটিভ, জার্নালিজম, কমিউনিকেশন অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগ
স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ।

Share.

Leave A Reply

eight + two =