অনন্য এক সংসদ অধিবেশন

0

সিনথিয়া করিম

সংসদের ৩৫০টি আসন কানায় কানায় পূর্ণ। সকলে ওঠে সম্মান জানালেন স্পিকারকে। বেজে ওঠে জাতীয় সঙ্গীত। এরপর শুরু হয় সংসদের মূল কার্যক্রম। সংসদে প্রস্তাব উত্থাপন করেন বিরোধী দলীয় সংসদ সদস্য মেহেদী হাসান বাপ্পী। প্রস্তাবটি হলো, ‘ খাদ্য অধিকার আইন চাই’।

প্রস্তাবের আলোকে সংসদের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য নোয়াখালী-৬ আসনের প্রতিনিধি সিনথিয়া করিম তাঁর বক্তব্য উপস্থাপন করেন।  তিনি কৃষিক্ষেত্রে সরকারের সাফল্যের সাথে সাথে কৃষকের ন্যায্য মূল্য না পাওয়ার কষ্ট এবং মধ্যস্বত্বভোগীদের শিকার হওয়ার সীমাবদ্ধতার কথা তুলে ধরেন। বক্তব্য রাখেন বিরোধীদলীয় সংসদ সদস্য নাটোর-৩ আসনের প্রতিনিধি আসিফ ইকবাল। এভাবে প্রায় ১৫ জন সরকার দলীয় এবং বিরোধীদলীয় সংসদ সদস্য প্রস্তাবিত বিষয়ের পক্ষে-বিপক্ষে বক্তব্য রাখেন।

সকল সংসদের বক্তব্য শেষে বিরোধীদলীয় নেতা মাহমুদুর রহমান বলেন, খাদ্য অধিকার আইন কোনো রাজনৈতিক দলের ক্ষমতায় যাওয়ার ইস্যু নয়। এ আইনের সঙ্গে দেশের আপামর জনগণের স্বার্থ জড়িত। তাই সব দলের ঐকমত্যে খাদ্য অধিকার আইন প্রণয়ন জরুরি।

সবশেষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী রাইসুল মিল্লাত শাফকাত বলেন, জনগণের খাদ্য নিরাপত্তায় সরকার কাজ করে যাচ্ছে। খাদ্য উৎপাদনে দেশ স্বয়ংসম্পূর্ণ। আগামীতে তার দল সরকার গঠন করতে পারলে খাদ্য অধিকার আইন প্রণয়নে কাজ করবে। গুরুত্বপূর্ণ এ বিষয়টি নির্বাচনী ইশতেহারেও থাকবে।

আলোচনা শেষে হ্যাঁ-না ভোটের মাধ্যমে ছায়া সংসদে প্রস্তাবটি গৃহীত হয়।

মঙ্গলবার (১৬ অক্টোবর) ‘খাদ্য দিবস’ উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে বাংলাদেশ যুব ছায়া সংসদের ৭ম অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। ‘খাদ্য অধিকার আইন চাই’ এই দাবির যৌক্তিকতা তুলে ধরার নিমিত্তে অতীতের ধারাবাহিকতা রক্ষার্থে হাঙ্গার ফ্রি ওয়ার্ল্ড, ইয়ুথ এগেইনস্ট হাঙ্গার, ড্যান চার্চ এইডসহ দেশের পঞ্চাশটির অধিক স্বেচ্ছাব্রতী সংগঠন এই যুব ছায়া সংসদ আয়োজন করেছে।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান। এছাড়া বাংলাদেশ টেলিভিশনের সাবেক মহাপরিচালক ম. হামিদ, এনজিও বিষয়ক ব্যুরো’র মহাপরিচালক কে এম আব্দুস সালাম, দৈনিক সমকালের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মুস্তাফিজ শফি, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক এবং এএফও এর সিনিয়র ন্যাশনাল এডভাইজার অধ্যাপক ডা. শাহ মনির হোসেন ও খাদ্য অধিকার বাংলাদেশ-এর সাধারণ সম্পাদক মহসিন আলী উপস্থিত ছিলেন। এতে সভাপতিত্ব করেন সাবেক কৃষি সচিব আনোয়ার ফারুক।

আয়োজকরা বলেন, দেশের ৫ কোটি যুব সমাজের পক্ষ থেকে খাদ্য অধিকার আইন প্রণয়নের দাবিতে এ অধিবেশনের আয়োজন করা হয়েছে।   এখান থেকে প্রাপ্ত সুপারিশসমূহ পরবর্তী সময়ে দেশের আইন প্রণেতা ও নীতি নির্ধারকদের কাছে উপস্থাপন করা হবে।

 

 

Share.

Leave A Reply

six + one =