অটিস্টিক বাচ্চাদের নিয়ে নির্মিত ‘পুত্র’ ছবিটি অনন্য দৃষ্টান্ত

0

বাংলা চলচ্চিত্রের অনন্য চরিত্র ফেরদৌস ও জয়া আহসানের অভিনীত ‘পুত্র’ টেলিফিল্মটি গত ৫ জানুয়ারি শুক্রবার মুক্তি পেয়েছে। মূলত ‘পুত্র’ ছবিটি বাংলাদেশের অটিস্টিক ছেলে-মেয়েদের নিয়ে নির্মিত হয়েছে।

বাংলাদেশের অটিস্টিক বাচ্চাদের পারিবারিক জীবন থেকে বেড়ে ওঠা কতোটা যে দুর্বিষহ সেটাই ফুটে ওঠেছে ছবিটির গল্পের মধ্য দিয়ে। জাজ মাল্টিমিডিয়ার পরিবেশনায় সাইফুল ইসলাম মান্নু পরিচালিত অটিস্টিক শিশুর গল্পের এ ছবি নিয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত জয়া ও ফেরদৌস। এমনই জানাগেছে নায়িকা জয়ার গত বুধবারের এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে।

ছবিটিতে দেখা যায়, ফেরদৌসের স্ত্রীর গর্ভে এক অটিস্টিক ছেলের জন্ম হয়। ছেলেটিকে স্কুলে ভর্তি করলে, সেখানে অন্য বাচ্চাদের কামড়ে দেয়। তাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক ফেরদৌসের অটিস্টিক বাচ্চাকে টিসি দিয়ে বের করে দেয়। বাচ্চাকে নিয়ে কোথাও বেড়াতে গেলে অনেকেই বাচ্চাটিকে ফেরদৌসের পাপের ফল বলে ধিক্কার দেয়। এটে ফেরদৌস মন খারাপ করে বাচ্চাটিকে ধমক দেয় এবং তাঁর স্ত্রীকে অপমান করে।

অন্যদিকে জয়ার এক অটিস্টিক বাচ্চার জন্য তাঁর স্বামী তাঁকে ছেড়ে বিদেশ চলে যায়। এদিকে জরার শাশুড়ি অটিস্টিক বাচ্চাকে জয়ার পাপের ফল বলে গালি দেয়।

ছবিটির শেষে দেখা যাবে, এসব কথা শুনে স্বামীর সংসার ছেড়ে বের হয়ে এসে একটি অটিস্টিকদের স্কুল খুলবে। সেখানে মিউজিকের মাধ্যমে বাচ্চাদের ভালো করে তুলবে। আর একটি গানের প্রতিযোগিতায় জয়ার স্কুলের বাচ্চারাই সুস্থ বাচ্চাদের পেছনে ফেলে জয় লাভ করবে।

ছবিটির কথা, শুর, গল্প ও চরিত্রগুলো দেখলে মনে হবে, চলচ্চিত্রটি অটিস্টিক বাচ্চাদের নিয়ে শ্রেষ্ঠ একটি গল্পের দাবীদার।

Share.

Leave A Reply

thirty eight − = thirty six